সাভারে ব্যবসায়ীদের সড়ক অবরোধ

সাভার সংবাদদাতা ॥ সাভারে স্বাস্থ্য বিধি না মানার কারণে গত ১৭ তারিখ থেকে সব মার্কেট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় উপজেলা প্রশাসন।
এর মাত্র দুই দিনের মাথায় মঙ্গলবার সকালে (১৯ মে) হঠাৎ করেই বাজার বাসস্ট্যান্ড এলাকার সিটি সেন্টার নামের একটি শপিং মল চালু করা হয়।
শুধুমাত্র একটি শপিংমল চালু করার প্রতিবাদে অন‌্যান‌্য ব্যবসায়ীরা ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে। এসময় তারা বিশেষ একটি মার্কেট চালু করার সিদ্ধান্ত উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলে দাবী করেন।
বিক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে বলেন, ‘‘গত ১০ মে থেকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে সাভারের সব মার্কেট চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেয় উপজেলা প্রশাসন। তাদের অনুমতি নিয়েই মার্কেট ব্যবসায়ীরা দোকান চালু রাখেন। তবে হঠাৎ করেই এর ১৬ তারিখে স্বাস্থ্য বিধি না মানার অভিযোগে গণ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে উপজেলা প্রশাসন সাভারের নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান ব্যতিত সকল মার্কেট বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়।
‘এর দুই দিন পার না হতেই গত সোমবার উপজেলা প্রশাসন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় সিটি সেন্টার নামের একটি মার্কেট চালুর সিদ্ধান্ত নেয়। তবে বিশেষ একটি মার্কেট চালু রাখার সিদ্ধান্তে ক্ষোভে ফেটে পড়েন অন্যান্য মার্কেটের ব্যবসায়ীরা।”
এর প্রতিবাদে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক নিউ মার্কেটের সামনে বিভিন্ন দোকান মালিক ও কর্মচারীরা জড়ো হতে থাকে। এক পর্যায়ে তারা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। এতে মহাসড়কে বন্ধ হয়ে যায় যানচলাচল। ভোগন্তির কবলে পড়েন শতাধিক পণ্যবাহী গাড়িসহ যাত্রীরা।
সিটি সেন্টারের এক দোকান মালিক জানান, মার্কেট কর্তৃপক্ষের কথায় তিনি সকালে দোকান চালু করেন। এর কিছু সময় পরই আবার দোকান বন্ধ করেও দেওয়া হয়েছে।
সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম সায়েদ বলেন, ‘ব্যবসায়ীরা সড়ক অবরোধ করে রাখার খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। পরে তাদেরকে বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। কিছুক্ষণের মধ‌্যেই যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।’
সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজুর রহমান বলেন, ‘‘সাভারের সব মার্কেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর এলাকার অনেকেই শপিংয়ের উদ্দেশ্যে ঢাকায় যাচ্ছেন।
এ কারণে উপজেলায় এক মিটিংএ স্বাস্থ্য বিধি মেনে সাভার, আশুলিয়া ও হেময়াতেপুর এলাকায় তিনটি বিপনীবিতান চালু রাখার প্রস্তাব করা হয়।
‘সে অনুযায়ী সাভারের সিটি সেন্টার ও হেমায়েতপুরের লালন টাওয়ার ও আশুলিয়ার অন্য একটি বিপনীবিতান চালু করার কথা উল্লেখ করা হয়।”
ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. শহিদুজ্জামান বলেন, ‘বিষয়টি তিনি শুনেছেন, এ নিয়ে ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ কাজ করছে।’

Comments

comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



প্রকাশ ও সম্পাদক : মো. রফিকুল ইসলাম

প্রধান সম্পাদক : পীরজাদা : মোঃ নোয়াব আলী,

নির্বাহী সম্পাদক: মোঃ সাদেক হোসেন খান,

সহকারী সম্পাদক: হাজী মোঃ জুলহাস খান ও মোঃ মহিউদ্দিন মহি

অফিস: হাজী মোছলেম উদ্দিন কমপ্লেক্স,

গাছা, গাজীপুর।

 

ইমেইল: news@bangladesh-protidin.com

ওয়েবসাইট নির্মানে: আইটি হাউজ বাংলাদেশ

ব্রেকিং নিউজঃ